আপনার কথাটেকনাফ

রোহিঙ্গা শিবিরে সন্ত্রাসী কর্মকার্ন্ড বৃদ্ধি  : বিজিবি কতৃক টেকনাফে অস্ত্রসহ ৩ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী আটক

95views
মোঃ শাহীন, টেকনাফ ::::
কক্সবাজারের আশ্রিত রোহিঙ্গা শিবির গুলোতে সন্ত্রাসী কর্মকার্ন্ড বৃদ্ধি পেয়েছে। ইতিমধ্যে রোহিঙ্গা শিবিরে মাদক ও অস্ত্রের ব্যবহার বাড়ছে। রোহিঙ্গা শিবিরের এ সব কমকান্ড ঠেকাতে স্থানীয় আইন শৃংখলা বাহিনী তৎপর হয়ে উঠেছে। টেকনাফে বিজিবির তৎপরতায় অস্ত্রসহ ৩ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীকে আটক করা সম্ভব হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) বেলা আড়াই টার দিকে টেকনাফস্থ ২ বর্ডার গার্ড ব্যাটলিয়ান অধিনায়ক লে. কর্ণেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান এক সংবাদ সম্মেলনে এ সব তথ্য জানায়। এসময় উপস্থিত ছিলেন ২ বর্ডার গার্ড ব্যাটলিয়ান উপ-অধিনায়ক মেজর শরিফুল ইসলাম জোমাদ্দার।
বিজিবি অধিনায়ক বলেন, গত বুধবার (১০ জুলাই) রাতে টেকনাফের হ্নীলা নয়াপাড়া রোহিঙ্গা শিবিরের এইচ ব্লকে একটি সংঘবদ্ধ ডাকাতদল অাগ্নেয়াস্ত্রসহ ডাকাতির প্রস্ততির গোপন সংবাদে নয়াপাড়া বিশেষ ক্যাম্পের একটি বিশেষ টহলদল সেখানে ছুটে গেলে ওই ব্লকের রাস্তায় অস্ত্রসহ তিন রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীকে আটক করা হয়।
আটকরা হলেন, হ্নীলা নয়াপাড়া ২৬ নাম্বার রোহিঙ্গা শিবিরের সি-ব্লকের ৫ নং বাসার আব্দুর রহমানের ছেলে সোলতান রহমান (১৯), একই শিবিরের ৮২৪ নং বাসার মোহাম্মদ আলমের ছেলে মোঃ আয়াস (১৮) ও  ২ নং বাসার মোঃ জুবাইরের ছেলে নুর কামাল (১৬)। তাদের কাছ থেকে একটি দেশীয় তৈরি অস্ত্র ও একটি খেলনার পিস্তল উদ্ধার করা হয়।
তিনি বলেন, ইতিমধ্যে রোহিঙ্গা শিবিরকে ঘিরে সন্ত্রাসী কর্মকার্ন্ড বাড়ছে। তবে রোহিঙ্গা শিবির সমূহে বিজিবির তৎপরতায় বৃদ্ধি করা হয়েছে। যার ফলে অস্ত্রসহ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী আটক করতে সক্ষম হয় বিজিবি। রোহিঙ্গা শিবির গুলোতে আইন শৃংখলা বাহিনীর পাশাপাশি নিরাপত্তা বাহিনী তৎপর রয়েছে বলে জানায়।
তিনি আরো বলেন, অস্ত্রসহ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী আটকের ঘটনায় শীর্ষ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের বিষয়ে থানায় সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা করা হবে। এ মামলাটি অধিকতর তদন্তের বিষয়ে পুলিশের উদ্ধর্তন কতৃর্পক্ষের সাথে আলাপ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন।