জাতীয়শিক্ষা ও প্রযুক্তি

জুলাই থেকে ১০ বছর মেয়াদী ই-পাসপোর্ট

30views

নিউজ টেকনাফ ডেক্স::::

ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার আরো এক ধাপ এগিয়ে গেল সরকার। আসছে জুলাই থেকে ১০ বছর মেয়াদী ইলেকট্রনিক পাসপোর্ট দেওয়া হবে। এজন্য সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে বলে সংসদীয় কমিটিকে জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

জাতীয় সংসদ ভবনে বুধবার (১৫ মে) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভায় এ তথ্য জানানো হয়। বৈঠকে বিদেশে অবস্থিত বাংলাদেশি মিশনগুলোকে পাসপোর্ট ইস্যু ও নবায়ন কার্যক্রম দ্রুত সম্পন্ন করতে মনিটরিং কার্যক্রম জোরদার করার সুপারিশ করা হয়।

এছাড়া ২০২০ সালের ‘মুজিব বর্ষ’ উদযাপনে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মপরিকল্পনা ও প্রস্তুতি নিয়ে আলোচনা করা হয়। ‘মুজিব বর্ষ’ উদযাপনে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে গঠিত আন্তর্জাতিক যোগাযোগ কমিটির সিদ্ধান্তগুলো স্থায়ী কমিটিকে জানানো এবং গৃহীত কর্মসূচিগুলো চূড়ান্ত করে সুষ্ঠুভাবে বাস্তবায়নের জন্য সাব-কমিটি গঠন এবং সম্ভাব্য বাজেট প্রণয়নের সুপারিশ করা হয়। এছাড়াও ‘মুজিব বর্ষ’ উদযাপনকালে সব মিশনের সামনে দৃষ্টিনন্দন ব্যানার ও ফেস্টুন দিয়ে সাজিয়ে বছরব্যাপী উৎসবের আবহ ধরে রাখার সুপারিশ করা হয়।

বৈঠক শেষে কমিটি সদস্য নাহিম রাজ্জাক বলেন, ই-পাসপোর্ট এই জুলাই থেকেই চালু হচ্ছে। তাতে মানুষের হয়রানি কমে যাবে। তাছাড়া বিদেশি মিশন নিয়ে কোনো মিথ্যা তথ্য প্রচারিত হলে তাৎক্ষণিক ভাবে মন্ত্রণালয়কে সত্য ঘটনা জানাতে কথা বলা হয়েছে।

বৈঠকে তিউনেশিয়ার ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলে অবৈধভাবে বিদেশে যাওয়ার সময় নিহত বাংলাদেশিদের জন্য শোক ও দুঃখ প্রকাশ করা হয়। সেই সঙ্গে যেসব দালাল চক্র মানব পাচারের সঙ্গে জড়িত তাদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নিতে মন্ত্রণালয়কে এবং সংশ্লিষ্ট মিশন গুলোকে আহত ও নিহতদের সহযোগিতা করতে সুপারিশ করা হয়।

এছাড়া বিদেশে বাংলাদেশি মিশন ও মন্ত্রণালয় সম্পর্কে গণমাধ্যমে কোনো নেতিবাচক সংবাদ প্রকাশিত হলে তাৎক্ষণিকভাবে সন্তোষজনক জবাব দেওয়ার সুপারিশ করা হয়।

কমিটির সভাপতি মুহাম্মদ ফারুক খানের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, নুরুল ইসলাম নাহিদ, মো. আব্দুল মজিদ খান, নাহিম রাজ্জাক এবং নিজাম উদ্দিন জলিল (জন) অংশগ্রহণ করেন।

এছাড়া পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মাহবুবুজ্জামান, মেরিটাইম অ্যাফেয়ার্স ইউনিটের সচিব খোরশেদ আলম, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।