আপনার কথাটেকনাফরোহিঙ্গা সমস্যা

টেকনাফ-উখিয়া সীমান্তে বিজিবির সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুই রোহিঙ্গা মাদক কারবারী নিহত

42views

নিজস্ব প্রতিনিধি::::

টেকনাফ-উখিয়া সীমান্তের হোয়াইক্যং উত্তর চাকমারকূল এলাকায় বিজিবির সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুই রোহিঙ্গা মাদক কারবারী নিহত হয়েছেন।

নিহত মাদক কারবারীরা হলেন, উখিয়া থাইংখালী ১৩নং ক্যাম্পের রোহিঙ্গা শামসুল আলমের ছেলে সাইফুল ইসলাম (২২) ও ১৯নং ক্যাম্পে নবী হোছনের ছেলে ফারুক হোসেন (২৫)।

সোমবার (২২ এপ্রিল) ভোর রাতে টেকনাফ-উখিয়া  সীমান্তের হোয়াইক্যং উত্তর চাকমারকূল সড়কের পূর্ব পার্শ্বে আবুল কাশেমের বাঁশ বাগান সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, ওইদিন টেকনাফ-উখিয়া সীমান্তের উত্তর চাকমারকূল সড়কের পূর্ব পার্শ্বে আবুল কাশেমের বাঁশ বাগান সংলগ্ন এলাকা দিয়ে ইয়াবার চালান নিয়ে আসার সময় উখিয়ার ৩৪ বিজিবি পালংখালী বিওপির একটি টহল দল তাদের থামার সংকেত দিলে মাদক কারবারীরা বিজিবির উপর হামলা করলে গোলাম কিবরিয়া নামে বিজিবি সদস্য আহত হয়।এতে বিজিবিও আত্নরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। গোলাগুলির এক পর্যায়ে সকালের দিকে ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় দুই ব্যক্তি পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় পুলিশকে খবর দেওয়া হয়।

হোয়াইক্যং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই দীপংকর রায় জানায়, উখিয়া উপজেলার পালংখালী ৩৪ বিজিবির সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধের সংবাদ বিজিবি জানালে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে গিয়ে গুলিবিদ্ধ দুইজনকে উদ্ধার করে উপজেলা হাসপাতালে প্রেরণ করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। এসময় স্থানীয় ভাবে মৃতদেহ দুইটি ওই রোহিঙ্গা নাগরিক বলে সনাক্ত করা হয়। পরে মৃতদেহ দুইটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

এই ঘটনাস্থল থেকে ২০ হাজার পিস ইয়াবা, একটি রামদা, একটি কিরিচ ও লোহার রড উদ্ধার করা হয় বলে জানায় পুলিশ কর্মকর্তা।