জাতীয়

লাশের পেটে ইয়াবা

48views

নিউজ টেকনাফ ডেক্স:::

সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজের মর্গে মৃত এক নারীর পেট থেকে ১৫শ’ পিস ইয়াবা পাওয়া গেছে। অজ্ঞাত (৪০) এ নারীর মরদেহ ময়নাতদন্তের সময় তার পেট থেকে প্যাকেটে মোড়ানো অবস্থায় এ পরিমাণ ইয়াবা পায় সোহরাওয়ার্দীর ফরেনসিক বিভাগ। বুধবার (৩ এপ্রিল) দুপুরে ময়নাতদন্তের সময় এ ঘটনা ঘটে।

মেডিক্যাল কলেজের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান এ এম সেলিম রেজা এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ওই নারীর ময়নাতদন্তের সময় তার পেট থেকে ইয়াবার প্যাকেট পাওয়া যায়। পরে খবর দিলে পুলিশ এসে ইয়াবাগুলো নিয়ে গেছে।

এর আগে সোমবার বিকেলে দুজন লোক এই নারীকে হৃদরোগ ইনস্টিটিউটের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসেন। সেখানে অজ্ঞাত নারীকে ডাক্তার মৃত ঘোষণা করলে সঙ্গে থাকা দুজন কৌশলে সটকে পড়ে বলে জানান শেরেবাংলা নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জানে আলম মুন্সি। তিনি বলেন, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে জানতে পেরেছি, মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে সঙ্গে থাকা দুজন অ্যাম্বুলেন্স আনার কথা বলে বাইরে যায়। এরপর আর ফিরে আসেনি।

মরদেহের সন্ধানে কেউ না আসায় বুধবার দুপুরে হৃদরোগ ইনস্টিটিউটের পাশেই থাকা সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্ত শুরু হয়। তখন পেট থেকে ১৫শ পিস ইয়াবা উদ্ধারের ঘটনা ঘটে।

যে দুজন ব্যক্তি অজ্ঞাত নারীকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন তাদের চিহ্নিত করতে কাজ চলছে বলে জানিয়েছেন শেরেবাংলা নগর থানার ওসি জানে আলম মুন্সি।

এদিকে সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যালের ফরেনসিক বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, ওই নারীর পেটে দুটি ইয়াবার প্যাকেট গলে গিয়েছিল। যে কারণে ওই নারীর মৃত্যু হতে পারে। তবে পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদনের আগে নিশ্চিতভাবে কিছু বলতে চাননি তারা।