আপনার কথাটেকনাফরোহিঙ্গা সমস্যা

সাগর পথে মানব পাচারের চেষ্টাকালে টেকনাফে ২৭ রোহিঙ্গা উদ্ধার

87views

নূরুল হক, টেকনাফ ::::

সাগর পথে মানব পাচারের চেষ্টা কালে টেকনাফ উপকূলে ২৭ জন রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করেছে বর্ডার র্গাড বাংলাদেশ (বিজিবি)। এই সব রোহিঙ্গাদের মধ্যে ৩ পুরুষ, ১৬ নারী এবং ৮ শিশু রয়েছে। এদের মধ্যে, রোহিঙ্গা শিবিরের উখিয়া কুতুপালং এর ৭ জন, জামতলীর ৬ জন, থ্যাংখালীর ৭ জন, বালুখালীর ১ জন, টেকনাফের মোচনীর ১ জন, লেদার ৩ জন ও শামলাপুর এলাকার ২ জন রোহিঙ্গা ছিল।
বুধবার (৩ এপ্রিল) দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে টেকনাফস্থ ২ ব্যাটলিয়ান বিজিবির ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল সরকার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান সংবাদ সম্মেলনে জানায়, বুধবার ভোর রাতে একটি মানব পাচার চক্র বাংলাদেশে বসবাসকারী কিছু রািেহঙ্গা নাগরিকদের অবৈধভাবে মালয়েশিয়া সাগরপথে পাচারের জন্য টেকনাফের মহেষখালীয়াপাড়া এলাকায় জমায়েত করা হয়।এই সংবাদে সাবরাং বিওপির হাবিলদার মোঃ আবুল কালাম এর নেতৃত্বে একটি টহলদল টেকনাফ মহেষখালীয়া পাড়া সাগর পাড়ে নৌকার জন্য অপেক্ষায় থাকা ১৩ জন রোহিঙ্গা নাগরিককে আটক করা হয়। এদের মধ্যে ২ জন পুরুষ, ৯ জন নারী এবং ২ জন শিশু ছিল।
এছাড়া গত মঙ্গলবার রাতে সাবরাং খুরের মুখ কাটাবনিয়া খালের মুখ সাগর তীরবর্তী এলাকা দিয়ে মানব পাচারের সংবাদে অভিযান চালিয়ে নৌকার জন্য অপেক্ষমান ১৪ জন রোহিঙ্গা নাগরিককে আটক করা হয়। এদের মধ্যে ১ জন পুরুষ, ৭ জন নারী এবং ৬ জন শিশু ছিল।
উদ্ধার হওয়া রোহিঙ্গা নাগরিকরা জানায়, টেকনাফ ও উখিয়ার শিবিরে বসবাসকারী রোহিঙ্গারা পাচারকারী দালালদের টাকা দিয়ে অবৈধভাবে মালয়েশিয়ায় গমন করছিল। নৌকা বা ট্রলার যোগে পাচার করতে রোহিঙ্গাদের সাগর পাড়ে জড়ো করা হয়। তবে বিজিবি সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে দালালচক্রের সদস্যরা পালিয়ে যাওয়ায় আটক করা সম্ভব হয়নি। উদ্ধার ভিকটিমদের জিজ্ঞাসাবাদে মানব পাচার চক্রে জড়িত দালালদের আটক বিষয়ে অভিযান চলমান রয়েছে।
এদিকে উদ্ধার ভিকটিম রোহিঙ্গা নারী ও শিশুদের স্ব স্ব ক্যা¤েপ পাঠানো হবে এবং তিন পুরুষকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন বিজিবির ওই কর্মকর্তা।