আপনার কথাএক্সক্লুসিভটেকনাফপর্যটন

টেকনাফ-সেন্টমাটিন রুটে নৌ-যান চলাচল :  পাঁচটি জাহাজের ১৭শ পযটক সেন্টমাটিন গমন

45views

জাকারিয়া আলফাজ, টেকনাফ::::

সর্তক সংকেত কেটে যাওয়ায় সেন্টমাটিন নৌ-রুটে জাহাজ চলাচল ফের শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৭ মাচ) সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে এ রুটে প্রায় ১৭শ পযটক নিয়ে ৫টি জাহাজ সেন্টমাটিনের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। ছেড়ে যাওয়া জাহাজ গুলো দ্বীপে আটকাপড়া পর্যটকদের ফিরিয়ে আনা হবে বলে জানায়।

তবে বৃহস্পতিবার সকালে টেকনাফের দমদমিয়া জেটি ঘাট থেকে পর্যটক নিয়ে এমভি আটলান্টিক ক্রুজ, বে-ক্রুজ, কেয়ারি ক্রুজ, কেয়ারি সিন্দাবাদ, এলসিটি কাজল সেন্টমাটিনের উদ্যেশ্যে ছেড়ে যায়। এতে প্রায় ১৭শ পযটক রয়েছেন বলে জানায় সংশ্লিষ্টরা।

বজ্রমেঘের ঘণঘটা বৃদ্ধির ফলে সমুদ্র বন্দর ও উপকূলীয় এলাকা সমূহে ৩ নম্বর সতর্কতা জারী করা হলে বুধবার কোন ধরনের পর্যটকবাহী জাহাজ বা জলযানকে সেন্টমার্টিন যেতে দেয়নি এবং মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবতী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সাবধানে থাকতে বলা হয়েছে। এর ফলে দ্বীপে ভ্রমনে আসা হাজারো পর্যটক আটকা পড়েন।

এ প্রসঙ্গে সেন্টমার্টিন ইউপি চেয়ারম্যান নুর আহমেদ বলেন, বৃহস্পতিবার সকালে আবহাওয়া ভাল হলে  জাহাজের অনুমতি দেয়। ফলে ‘দ্বীপে আটকাপড়া হাজারো দেশি-বিদেশি পর্যটক ফিরে যেতে পারবে। তবে আটকা পড়া পর্যটকদের সব ধরনের সহযোগিতার দেওয়া হচিছল। ’

পর্যটকবাহী জাহাজ কেয়ারি সিন্দাবাদ টেকনাফ ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ শাহ আলম বলেন, ‘সর্তক সংকেত  কেটে যাওয়ায় সেন্টমার্টিন রুটে জাহাজ চলাচলের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।  দ্বীপে ভ্রমনে গিয়ে আটকাপড়া  হাজারো পর্যটকদেন ফিরিয়ে আনা হবে ।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: রবিউল হাসান বলেন, সর্তকতার কারনে সেন্টমার্টিন রুটে জাহাজ চলাচল বন্ধ ছিল। এর ফলে দ্বীপে পর্যটক আটকা পড়েছে। আটকাপড়া পর্যটকদের খোঁজ খবর নেওয়া হয়। সংকেত কেটে যাওয়ায় জাহাজ চলাচল শুরু হয়েছে, ফলে আটকাপড়া পযর্টকদের ফিরিয়ে আনা হবে।’