1. monirabdullah83@gmail.com : admin2020 :
  2. editor@newsteknuf.com : News Teknuf : News Teknuf
শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ০৯:০৮ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
হোয়াইক্যং পাঁকা রাস্তায় মাদক বিক্রির সময় ইয়াবাসহ এক নারী আটক নয়াপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় এক রোহিঙ্গা মাঝি উদ্ধার লিখাটি সকল পিতা-মাতার জন্য টেকনাফে টানা বর্ষণে প্লাবিত ৪২’শ পরিবারকে প্রধামন্ত্রীর ত্রাণ সহায়তা বন্যার্তদের পাশে ছুটে গেল কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগ ভুল রেকর্ড সংশোধনের জন্য এসিল্যান্ডদের নির্দেশ দিয়ে পরিপত্র জারি পুরাতন পল্লান পাড়ার আনোয়ারা বেগম ও কায়ুকখালী পাড়ার নুর বেগম ইয়াবাসহ আটক হ্নীলা পাহাড় ধসে একই পরিবারে ৫ জন নিহত- জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে নগদ অর্থ প্রদান বন্যহাতি টেকনাফের প্রধান সড়কে টেকনাফ-উখিয়া পাহাড় ধসে ও ডুবে নিহত শিশুসহ ৭

আমি স্বীকৃত দালাল কিংবা খুনি ও রাজাকারের সন্তান নই, একজন মুক্তিযোদ্ধার নাতি

নিউজ টেকনাফ ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় রবিবার, ২০ জুন, ২০২১
  • ৩৬ বার পড়া হয়েছে

দেশের দক্ষিণ সীমান্ত টেকনাফে নিজে এক মাত্র বড় সাংবাদিক দাবিদার তার কাজই হচ্ছে শুধু কার স্বজন কোথায় কি নিয়ে ধরা পরছে শুধু সেগুলো ফেসবুকে আপলোড করা। যদিও অনেক সময় ফেসবুক লিখনি নিয়ে হেও করে সমালোচনা করেন তিনি।

শুধু এসব নিয়ে লিখালিখি কেন তার? প্রতিদিন তো কেউ না কেউ আটক হন এ নিয়ে লিখে না কেন? হয়তোবা বাকিদের কাছ থেকে মাসোহারা পায়! যদিও জনশ্রুতি রয়েছে শীর্ষ ইয়াবা কারবারিদের কাছ থেকে মাসোহারা নেন। তার ব্যাংক হিসাব তলব করলে প্রমাণ বেরিয়ে আসবে? ভাই ব্রাদার কাকা-কাকি কোথায় কার বোটে ইয়াবা ধরা পরেছে, সেটি টেনে এনে ইয়াবা কারবারি বানানোর চেষ্টায় লেগে আছে। মনে হয় পৈত্রিক সূত্রে রাজাকার আমল থেকে এটি টেন্ডার পাওয়া কাজ তার। যারা অপরাধ করবেই তারা একদিন না একদিন আইনের কাছে ধরা পরবে সেটা স্বাভাবিক। এখানে কেউ পাহারা দিয়ে রাখার সুযোগ নেই। আর কেউ আইনে উর্ধ্বে নই..

সর্ম্পকের টানাপোড়ন :

এক সঙ্গে ৭-৮ বছর ধরে একই অফিসে বসে একই সংগঠনের ছিলাম। তখন তার এসব গল্প কাহিনী কই ছিল? মূলত প্রতিদিন এই মহা সাংবাদিককে নিউজ না দেয়ার কারনে সম্পর্ক ইতি টানে তখন। বিষয়টি নিয়ে আরো অনেক কাহিনী আছে সেটি আমার কয়েকজন সহকর্মীরাও জানেন। এরপর আমি সেখান থেকে চলে আসি। সেই থেকে ক্ষুদ্ধ হয়ে সুনাম ক্ষুন্ন করতে অপপ্রচার অব্যাহত রাখে তারা। আমি কেমন সাংবাদিকতা করছি সেটি গুটা দেশ জানে, জানে গুটা কক্সবাজার সাংবাদিক ভাইয়েরা। তোর মত কপি, কাট ও পেষ্ট নিয়ে ব্যস্ত থাকার লোক আমি না। মজার ব্যাপার একটি সামন্য এনজিওর ট্রেনিংএ পরীক্ষার্থীদের সবচেয়ে কম নাম্বার পাওয়া লোক তুই আর সেখান সুযোগ না পাওয়া দালাল? আমার স্বচ্ছতা ও মাঠ পর্যায়ে কাজের দক্ষতার পুরুস্কার হিসেবে প্রতিষ্টান আমাকে তিন বার সেরা প্রতিবেদক হিসেবে স্বৃকীতি দিয়েছে। অন্য এক প্রতিষ্টান থেকে আরো ৫ মাস সেরা প্রতিবেদক নির্বাচিত হয়েছি। অফিসে কপির প্যাকেটের সাথে মোরব্বা পাঠানোর পর এসব পুরুস্কার পেয়েছি এমনটা না?

নিউজ দেয়া বন্ধের পর ক্ষুদ্ধ:

মুলত রোহিঙ্গা নিউজের কারনে সম্পর্কতা ইতি টানে তার সঙ্গে। কারন আমি রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে কাজ করা সুবাদে জার্মান সংবাদ মাধ্যম ডয়েস ভেলে বাংলা, বিবিসি ইউকে রেডিও ফ্রি এশিয়া বেনার,

বিবিসি ডটকম বাংলা, এএফপি’ ও স্কাই নিউজ মত আন্তজার্তিক মিডিয়ায় কাজ করা সুযোগ হয়েছে আমার। আর তাদের এসব ওয়াবসাইট যেতে আলাদা করে কোর্স অথবা আবদুল আলী এর মত মোবাইল মাস্টারকে খোঁজতে হবে। বিদেশি এসব মিডিয়ায় রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে আলাদা কাজ করেছি এতে আমার ইনকামও হতো। তবে শর্ত ছিল তাদের জন্য তৈরী করা নিউজ অন্য কোথাও প্রচার করা যাবে না। সেই সুবাদে নিউজ দেয়ার সুযোগ ছিল না তাকে। তখন থেকে আমার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে পরে লাগে।

 

এমনকি আমার কাছ থেকে নিয়ে টেকনাফের নিউজ গুলো আমার জেলা প্রতিনিধিকে ‘পাচার’ করতো আমাকে বেকায়দায় ফেলার লক্ষ্যে। বর্তমানে দুটিতে বিদেশি মিডিয়াতে কর্মরত রয়েছি। নাম বলছি না, কারনে তারা আবার নামে বেনামে দরখাস্ত মারার খুব ওস্তাদ? একটি আশ্চর্যের বিষয় হলো বিদেশি এসব মিডিয়া তাদের কাছে আন্তজার্তিক মিডিয়া মনে হয় না? কোন জঙ্গলে বসতি করে কে জানে? জানবে কেমনে যাদের এখনো একটা নিউজ লিখতে ৮-১০টি ওয়াবসাইট খুলে রাখতে হয়, যার এখনো মুখে ফিস্ ফিস্ করে বলে বলে লিখতে হয়, তারাও নিজেদের বড়ো সাংবাদিক ও নেতা দাবি করে, একটু লজ্বা হয়না? লজ্বা না হওয়ার কথা বিবেকহীন মানুষের কি আবার লজ্বা? হুম আমি খারাপ, তব্র যে যায় বলুক “আমি মুক্তিযোদ্ধার নাতি আমার বাবা ‘রাজাকার’ না আমি রাজাকারের ছেলে নই” এটা আমার কাছে বড় কিছু।

সুতরাং, তার দুই খালাতো ভাই শীর্ষ মানব পাচারকারী বন্দুক যুদ্ধে মারা গেছে, আরেক ভাই গাঁজা মদ বিক্রি করে রাতে আসর বসায় এবং ধর্ষন মামলার আসামিও, মৃত ভাইয়ের কথা নাই বা বললাম, দুজন স্বজন শীর্ষ ইয়াবা কারবারি হিসবে আত্মসমর্পন করেছে, অন্য একজনের নাম হুন্ডির তালিকায় আছে। এসব প্রমাণ দেবার সময় আমার কাছে নেই। মুল কথা হচ্ছে তার বিরোদ্ধে স্টাম্প মূলে ৯০ হাজার টাকা নিয়ে তৈয়ুব নামে এক ব্যক্তিকে ভূয়া নামজারি করে দেয়া।

এটা খুব ইন্টারেস্টিন ঘটনা। লম্বা কাহিনী পরে বলুম! এখন সব হারিয়ে মানুষের ধারে ধারে বিচার প্রার্থনা করছে সে। আদৌ কি এর বিচার পাবে তৈয়ুব? আর ছয় লাখ টাকায় মামলা থেকে বাদ দেয়া নামে গুজব ছড়ানো দালাল হত্যাকারী ল্যাপটেপ ওপেন করতে না জানা কথিত সাংবাদিক নুরুল হোসাইন মেজর সিনহা হত্যার পর তার কুর্কম দেশবাসি প্রমাণ পেয়েছে। ক্রসফায়ার নামে লাখ টাকা নেয়া বেকায়দায় পরে টাকা বমি করা, ঘুষ নেওয়ার অডিও ফাঁস সহ অনেক অভিযোগ তার বিরোদ্ধে। এমনকি ঘুষ না পেয়ে ক্রসফায়ার দেয়ার হত্যার অভিযোগে একটি মামলাও রয়েছে। আবার সেও বড়ো সাংবাদিক নেতা দাবি করে।

এ দালালের বিষয়ে আরো বেশি কিছু জানতে সহকর্মী খান মাহমুদ ও রহমত উল্লাহ’র পূর্বেকার বস্তুনিষ্ট রিপোর্ট গুলো পড়তে পারেন। দালাল হওয়ার সুবাদে তাদের একট

শেয়ার করুন

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020 Newsteknaf
Theme Developed BY ThemesBazar.Com